আনুশকার কারণেই ভালো মানুষে পরিণত হতে পেরেছি: কোহলি

মাঠের কোহলিকে যারা চেনেন তারা হয়তো হয়তো জানেন কতোটা আগ্রাসী বিরাট কোহলি। কিন্তু মাঠের কোহলি কি সত্যিকার কোহলি? খেলার বাইরেও অন্য এক কোহলি আছেন।

ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির জীবন যার ছোঁয়ায় বদলে গেছে তিনি আর কেউ নন তার স্ত্রী আনুশকা শর্মা।নিজেকে ভালো মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার পিছনে যার অবদান অপরিসীম। সেই প্রিয়তমা স্ত্রীকে ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা জানাতে ভুললেন না বিরাট কোহলি।

ভারতীয় ক্রিকেট দলের টেস্ট ওপেনার মায়াঙ্ক আগারওয়ালের সঙ্গে এক লাইভ সেশনে নিজের জীবনবোধ নিয়ে কথা বলেছেন কোহলি। যার বড় অংশ জুড়েই ছিল আনুশকার উপস্থিতি। কোহলি বারবার মনে করিয়ে দিয়েছেন, আনুশকার সঙ্গে তার পরিচয়ের পর থেকেই কিভাবে বদলে যেতে শুরু করেছে তার জীবন।

কোহলি বলেন, ‘আমার নিজের ভিন্ন এক সত্তাকে দেখতে পারার পুরো কৃতিত্ব আমি ওকে (আনুশকা) দিবো। তাকে জীবনসঙ্গিনী হিসেবে পাওয়াটা সৌভাগ্যের। আমি আগে অনেক অন্তর্মুখী মানুষ ছিলাম, ব্যবহারিক জীবন নিয়ে ভাবতাম না। এখন সব বদলে গেছে আনুশকার জন্য।

‘আমার নিজের ভালো-মন্দ বোঝার জ্ঞানটাও খুব একটা ছিল না। সে আমাকে বৃহৎ পরিসরে সবকিছু বুঝতে শিখিয়েছে। আমি সবসময় ওকে পুরো কৃতিত্ব দেবো। আমি হয়তো এখনো ভিন্ন মানসিকতার থাকতাম। ওর সঙ্গে দেখা না হলে হয়তো অনেক কিছুই অপূর্ণ থাকত।’

এসময় আনুশকার সঙ্গে বিয়ের কারণেই তিনি একজন ভালো মানুষে পরিণত হয়েছেন জানিয়ে কোহলি বলেন, ‘সে মানুষ এবং পরিস্থিতি খুব ভালো বুঝতে পারে। আমাকেও অনেক কিছু বুঝতে শিখিয়েছে।

ওর মতো একজন জীবনসঙ্গিনী পাওয়া অনেক বড় আশীর্বাদ।’এর আগে প্রায় পাঁচ বছর প্রেম করার পর ২০১৮ সালে ইতালিতে ধুমধাম করে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয় এই তারকা জুটি।