আইএইএ মহাপরিচালকের ভূমিকা অচলাবস্থা তৈরি করতে পারে: ইরান

ভিয়েনায় আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোতে নিযুক্ত ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের রাষ্ট্রদূত কাজেম গরিবাবাদি বলেছেন, ইরান বিষয়ে আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা বা আইএইএ সম্প্রতি যে অগঠনমূলক অবস্থান নিয়েছে তা এই সংস্থা এবং ইরানের মধ্যকার যোগাযোগকে অচলাবস্থার মধ্যে ফেলে দিতে পারে।

তিনি বলেন, আইএইএ মহাপরিচালক রাফায়েল গ্রোসির সাম্প্রতিক একতরফা অবস্থান ইরান ও আন্তর্জাতিক সংস্থাটির মধ্যে সহযোগিতার ক্ষেত্রে বাধা সৃষ্টি করতে পারে।

গ্রোসি গতকাল (সোমবার) বলেছেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে আইএইএ’র প্রশ্নের সুস্পষ্ট জবাব না দেয়ায় তেহরানের পরমাণু কর্মসূচিকে শান্তিপূর্ণ বলে রায় দিতে এ সংস্থা সক্ষম নাও হতে পারে। তিনি আরো বলেন যে, আইএইএ’র সঙ্গে ইরান পরিপূর্ণ সহযোগিতা করছে না।

আন্তর্জাতিক এ সংস্থা দাবি করছে, ইরানের হাতে চারটি অঘোষিত স্থানে পরমাণু স্থাপনা রয়েছে যেখানে আইএইএ-কে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। তবে গ্রোসি এমন কথা এই প্রথম বলেন নি, এর আগেও তিনি এমন দাবি করেছেন।

এর আগে, ইহুদিবাদী ইসরাইলের গুপ্তচর সংস্থার পক্ষ থেকে দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ইরানের দুটি পরমাণু স্থাপনায় প্রবেশের অধিকার চেয়েছিল আইএইএ। ইরান সেখানে আইএইএ-কে প্রবেশাধিকার দিয়েছিল তবে ভিনদেশি গুপ্তচর সংস্থার রিপোর্টের ভিত্তিতে এমন দাবি জানানোর কারণে ইরান প্রচণ্ড প্রতিবাদ করেছিল।

সূএঃ পার্সটুডে