অস্ত্রোপচারের পর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ, প্রণব মুখার্জির অবস্থা আশঙ্কাজনক

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির শারীরিক অবস্থা এখনও সংকটাপন্ন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দিল্লির সেনা হাসপাতালের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে– ‘সাবেক রাষ্ট্রপতির প্রাণ বাঁচাতে সোমবার জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রোপচার করতে হয়েছিল।

কিন্তু এর পর থেকে তার শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হয়েছে। কারণ অস্ত্রোপচারের পর মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ বন্ধ হচ্ছে না। বর্তমানে তাকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে।

রক্তজমাট না বাঁধা পর্যন্ত তার অবস্থার উন্নতি হবে না বলেই মনে করছেন চিকিৎসকরা। বিভিন্ন ক্ষেত্রের চিকিৎসকদের নিয়ে তৈরি একটি দল সাবেক রাষ্ট্রপতির দেখভাল করছেন। সরকারের শীর্ষ পর্যায় থেকে নিয়মিতভাবে তার স্বাস্থ্যের খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।

সোমবার দুপুরে প্রণব মুখার্জিকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার মাথায় রক্তজমাট বেঁধে ছিল। অস্ত্রোপচারের পরও তার শারীরিক অবস্থা সংকটজনক।

রোববার রাতে বাড়িতে পড়ে গিয়ে মাথায় বেশ চোট পান প্রণব মুখার্জি। এতে মাথা না ফাটলেও স্নায়ুঘটিত সমস্যাও দেখা দেয়। হাসপাতালে ভর্তি করার পর সিটিস্ক্যান করে দেখা যায়, তার মস্তিষ্কে রক্তজমাট বেঁধে রয়েছে। অস্ত্রোপচার করা ছাড়া উপায় নেই। অস্ত্রোপচারের আগে তার করোনা ধরা পড়ে।

হাসপাতালের একটি সূত্র জানায়, ৮৪ বছর বয়সী সাবেক রাষ্ট্রপতিকে ভেন্টিলেশনে রাখা হলেও তার কারণ করোনা নয়। তিনি স্বাভাবিকভাবে শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছেন।

সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবেই তাকে ভেন্টিলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আপাতত মূল সমস্যা হলো– অস্ত্রোপচারের জায়গা থেকে রক্তক্ষরণ বন্ধ হচ্ছে না। প্রণব মুখার্জি দীর্ঘদিন ধরেই রক্ত পাতলা রাখার ওষুধ খাচ্ছেন। সে কারণেই রক্ত পুরোপুরি জমাট বাঁধছে না।

ইউপিএ সরকারের আমলে প্রতিরক্ষামন্ত্রী থাকার সময় থেকেই প্রণব মুখার্জি সেনা হাসপাতালে চিকিৎসা করান। বর্তমান প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহও তার চিকিৎসার বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছেন।